চারঘাটে নারী ইউপি সদস্যকে পেটালো চেয়ারম্যানের ভাতিজা

নিজস্ব প্রতিবেদক: রাজশাহীর চারঘাটের নিমপাড়া ইউপি চেয়ারম্যানের ভাতিজা এ্যাপোলোর বিরুদ্ধে নারী ইউপি সদস্যকে পিটিয়ে আহত করার অভিযোগ উঠেছে। দোকানে বাকির টাকাকে কেন্দ্র করে এ ঘটনা ঘটেছে বলে জানা গেছে। গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে নন্দনগাছী বাজার এলাকায় ঘটনাটি ঘটে।

জানা গেছে, আহত অবস্থায় নারী ইউপি সদস্য লাইলী বেগমকে স্থানীয় লোকজন ও পরিবারের সদস্যরা উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। আহত লাইলী বেগম নিমপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের ৭, ৮ ও ৯ নম্বর ওয়ার্ডের সংরক্ষিত নারী সদস্য। এ ঘটনায় চারঘাট মডেল থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন তিনি।

লাইলী বেগম জানান, কয়েক মাস আগে ইউপি চেয়ারম্যানের ভাতিজা এ্যাপোলোর দোকান থেকে স্থানীয় এক ব্যক্তিকে নলকূপ কিনে দেন তিনি। কথা ছিল ইউনিয়ন পরিষদ থেকে নলকূপের বিল পেলে টাকা পরিশোধ করবেন। কিন্তু টাকা পেতে দেরি হওয়ায় এ্যাপোলো হুমকি-ধমকি দিতে থাকেন। বিষয়টা এ্যাপোলোর চাচা ইউপি চেয়ারম্যান মনিরুজ্জামানকে জানানো হয়। কিন্তু ইউপি চেয়ারম্যান কোনো ব্যবস্থা গ্রহণ করেননি। সর্বশেষ মঙ্গলবার দুপুরের দিকে এ্যাপোলো তাঁকে ফোন করে দোকানে দেখা করতে বলেন। দোকানে দেখা করতে গেলে কথা-কাটাকাটির একপর্যায়ে এ্যাপোলো তাঁকে দোকানের রড দিয়ে আঘাত করেন। স্থানীয়রা আহত তাঁকে অবস্থায় উদ্ধার করে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসে। এ ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত ও বিচার দাবি করেছেন তিনি।

এ ঘটনার বিষয়ে জানতে চাইলে এ্যাপোলোর চাচা ইউপি চেয়ারম্যান মনিরুজ্জামান বলেন, ‘মহিলা মেম্বারকে মারধরের বিষয়ে আমার কোনো ধরনের সম্পৃক্ততা ছিল না। তবে ঘটনাটি স্থানীয়ভাবে মীমাংসা করার চেষ্টা চলছে।’

চারঘাট মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাহাঙ্গীর আলম বলেন, ‘এ ঘটনায় লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। বিষয়টি তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button