চারঘাটের ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক সেন্টারে আল্টিমেটাম, গ্রামীণের এক্সরে বিভাগে তালা

আবুল কালাম আজাদ (সনি): রাজশাহীর চারঘাট উপজেলার ১২ টি প্রাইভেট ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক সেন্টারের সবগুলোই চলছে অবৈধভাবে। এসব বেসরকারি স্বাস্থ্য সেবা প্রতিষ্ঠানগুলিকে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে সব রকমের অনুমতিপত্র ও লাইসেন্স নবায়ন করতে আল্টিমেটাম দেয়া হয়েছে।

শনিবার (৫ জুন) রাজশাহী সিভিল সার্জনের প্রতিনিধি ডা. খুরশিদুল ইসলাম ও উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডাঃ আশিকুর রহমান সরেজমিনে ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক সেন্টারগুলো পরিদর্শন করেন। পরিদর্শন শেষে তাদের ১৫ দিনের আল্টিমেটাম দেয়া হয়। এসময় নিয়ম অনুযায়ী পর্যাপ্ত পরিবেশ না থাকায় গ্রামীণ ডায়াগষ্টিক সেন্টারের এক্স-রে বিভাগ বন্ধ ঘোষনা করে তালাবন্ধ করে দেওয়া হয়।

পরিদর্শন কালে আরো উপস্থিত ছিলেন জুনিয়র কনসালটেন্ট সার্জারি ডা. বেলাল হোসেন ও চারঘাট স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে করোনা ফোকাল পারসন ডা.শংকর কুমার।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সূত্রে জানা যায়, উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় অন্তত ১১ টি ক্লিনিক ও  ডায়াগনস্টিক সেন্টার গড়ে উঠেছে। এর মধ্যে কোনোটারই লাইসেন্স নবায়ন নেই। উপজেলার সবগুলো ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক সেন্টার অবৈধ ভাবে চলছে।

এ বিষয়ে চারঘাট উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাক্তার আশিকুর রহমান জানিয়েছেন, উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশে উপজেলার প্রতিটি বেসরকারি ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক সেন্টার পরিদর্শন করা হয়েছে। কোনো প্রতিষ্ঠানই এ বছর লাইসেন্স নবায়ন করেনি।

এজন্য প্রতিষ্ঠান গুলোকে কাগজপত্র ঠিক করতে ১৫ দিন আলটিমেটাম দেয়া হয়েছে। এরপর যে কোনো সময় অভিযান চালিয়ে কাগজপত্র পাওয়া না গেলে সেগুলো সিলগালা করে দেয়াসহ কঠিন ব্যবস্থা নেয়া হবে বলেও প্রতিষ্ঠানগুলির মালিকদের জানানো হয়েছে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button